মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৪৯ পূর্বাহ্ন

আপডেট
*** অনলাইন নিউজ পোর্টাল / অনলাইন টেলিভিশন সহ যে কোন ধরনের ওয়েবসাইট তৈরির  জন্য আজই যোগাযোগ করুন  - ০১৬৪৬৯৯০৮৫০।।  ভিজিট করুন - www.popularhostbd.com।।
সংবাদ শিরোনাম :
কালকিনিতে দোয়া মাহফিল ও কেক কাটার মধ্যে দিয়ে তারেক রহমানের ৫৬তম জন্মদিন পালন সাউথ আফ্রিকায় ঠাকুরগাঁওয়ের আব্দুর রহমান সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত  অবশেষে ডাসার থানা কমিটি ঘোষণা-সৈয়দ শাখাওয়াত হোসেন আহ্বায়ক কাজী দোদুল যুগ্ন আহবায়ক এবার চরের বালুতে ভাগ্য বদল করা ‘গোবিন্দগঞ্জে মিষ্টিআলু’ চাষ থমকে গেছে চারার অভাবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় ০৮ জন নিহত ও ০৪ জন আহত।  জামালপুরে নাতির কুকর্মের দায়ে ৮৫ বছর বৃদ্ধের সাথে ১১বছরের শিশুকন্যার বিয়ে গোবিন্দগঞ্জ বিএম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এডহক কমিটির প্রথম পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত মাদারীপুরের কালকিনিতে বিরল রোগে আক্রান্ত শিশু নাজিফা ঠাকুরগাঁওয়ে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় ২ জনের মৃত্যু, আহত-১/উভ গাইবান্ধায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দাদি-নাতি ও ছেলের মৃত্যু  

কালকিনিতে যমজ নবজাতক কন্যা সন্তান নিয়ে বিপাকে বাবা

কালকিনিতে যমজ নবজাতক কন্যা সন্তান নিয়ে বিপাকে বাবা

কালকিনি(মাদারীপুর)প্রতিনিধিঃ

মাদারীপুরের কালকিনিতে তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে ১৯ দিন বয়সের যমজ নবজাতক দুই কন্যা সন্তান স্বামীর বাড়িতে একা ফেলে রেখে নিজের বাবার বাড়ি চলে গেছেন শানজিদা বেগম(১৯) নামে এক পাষান্ড গৃহবধু। এতে করে ওই দুই যমজ নবজাতক কন্যা সন্তান নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন বাবা। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার কাজীবাকাই এলাকার দক্ষিন মাইজপাড়া গ্রামের ফজল মোল্লার ছেলে হাচান মোল্লার সঙ্গে পৌর এলাকার মিনাজদী গ্রামের ফজলে হাওলাদারের মেয়ে শানজিদা বেগমের প্রায় দেড় বছর আগে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে শানজিদা বেগমের সঙ্গে তার স্বামী হাচানের সংসার সুখেই কাটে। এবং কি গত ১৯ দিন আগে শানজিদা বেগম একই সঙ্গে দুটি যমজ কন্যা সন্তান জন্মগ্রহন করে। কিন্তু পারিবারিক তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে ওই নবজাতক দুটি গত মঙ্গলবার শানজিদা বেগম স্বামী বাড়ি একা ফেলে রেখে তার বাবার বাড়ি চলে যায়। এতে করে হাচান মোল্লাকে তার নবজাতক দুই কন্যা সন্তান লালন-পালন করতে একা চরম হিমসিম খেতে হচ্ছে। এদিকে মায়ের বুকের দুধ না খেতে পেরে ওই যমজ নবজাতক দুটি বাবা হাচান মোল্লার কোলে বসে সারাদিন-রাত কান্না করছে। মায়ের অভাবে নবজাতক দুটির কান্না থামছে না।

যমজ নবজাতকের পিতা হাচান মোল্লা বলেন, আমার স্ত্রী কারনে এবং অকারনে একটু হলেই তার বাবার বাড়ি চলে যায়। এবার আমার দুটি বাচ্চা ফেলে রেখে চলে গেছে। তাকে আসতে বলে সে আসতে চায়না। এখন বাচ্চা দুটির কি হবে।

তবে শানজিদা বেগমের দাবি, শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে যন্ত্রনা দেয়ায় সে বাবার বাড়ি চলে গেছেন।

এ ব্যাপারে কাজীবাকাই ইউপি চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মোল্লা বলেন, আসলে বিষয়টি দঃখজনক। বিষয়টি সমাধান করে দেয়া হবে।


Search News




©2020 Daily matrichaya. All rights reserved.
Design BY PopularHostBD