বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন

আপডেট
*** অনলাইন নিউজ পোর্টাল / অনলাইন টেলিভিশন সহ যে কোন ধরনের ওয়েবসাইট তৈরির  জন্য আজই যোগাযোগ করুন  - ০১৬৪৬৯৯০৮৫০।।  ভিজিট করুন - www.popularhostbd.com।।
সংবাদ শিরোনাম :
কালকিনিতে দোয়া মাহফিল ও কেক কাটার মধ্যে দিয়ে তারেক রহমানের ৫৬তম জন্মদিন পালন সাউথ আফ্রিকায় ঠাকুরগাঁওয়ের আব্দুর রহমান সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত  অবশেষে ডাসার থানা কমিটি ঘোষণা-সৈয়দ শাখাওয়াত হোসেন আহ্বায়ক কাজী দোদুল যুগ্ন আহবায়ক এবার চরের বালুতে ভাগ্য বদল করা ‘গোবিন্দগঞ্জে মিষ্টিআলু’ চাষ থমকে গেছে চারার অভাবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় ০৮ জন নিহত ও ০৪ জন আহত।  জামালপুরে নাতির কুকর্মের দায়ে ৮৫ বছর বৃদ্ধের সাথে ১১বছরের শিশুকন্যার বিয়ে গোবিন্দগঞ্জ বিএম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এডহক কমিটির প্রথম পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত মাদারীপুরের কালকিনিতে বিরল রোগে আক্রান্ত শিশু নাজিফা ঠাকুরগাঁওয়ে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় ২ জনের মৃত্যু, আহত-১/উভ গাইবান্ধায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দাদি-নাতি ও ছেলের মৃত্যু  

হাজী সেলিমের ছেলে আটক

হাজী সেলিমের ছেলে আটক

নৌবাহিনীর এক কর্মকর্তাকে মারধর হত্যার হুমকির ঘটনায় ঢাকা আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে এরফান সেলিমকে আটক করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে বাসা থেকে তাকে আটক করা হয় বলে ্যাবের একটি সূত্র জানিয়েছে

এর আগে আজ ভোরে ভুক্তভোগী নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট মোঃ ওয়াসিফ আহমেদ ধানমন্ডি থানায় মামলাটি দায়ের করেন

মামলায় হাজী সেলিমের ছেলে এরফান সেলিম (৩৭), তার বডিগার্ড মোহাম্মদ জাহিদ (৩৫), হাজি সেলিমের মদীনা গ্রুপের প্রটোকল অফিসার এবি সিদ্দিক দিপু (৪৫), গাড়িচালক মিজানুর রহমানসহ (৩০) অজ্ঞাতপরিচয়ের দুতিনজনকে আসামি করা হয়েছে

রোববার রাতে রাজধানীর ধানমন্ডির কলাবাগান মোড়ে হাজী সেলিমের গাড়ি থেকে নেমে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট মোঃ ওয়াসিফ আহমেদকে মারধর করা হয়। ঘটনার পর পর গাড়িটি ফেলে এর নম্বরপ্লেট ভেঙ্গে চলে যান হাজী সেলিমের ছেলে তার বডিগার্ডরা

রাতে ঘটনায় জিডি হলেও আজ ভোরে হাজী সেলিমের ছেলেসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, এরফানের গাড়ি ওয়াসিফকে ধাক্কা মারার পর তিনি সড়কের পাশে মোটরসাইকেলটি থামিয়ে গাড়ির সামনে দাঁড়ান এবং নিজের পরিচয় দেন। তখন গাড়ি থেকে আসামিরা একসাথে বলতে থাকেন, ‘তোর নৌবাহিনী/সেনাবাহিনী বের করতেছি, তোর লেফটেন্যান্ট/ক্যাপ্টেন বের করতেছি। তোকে এখনি মেরে ফেলববলে কিলঘুষি মারেন এবং আমার স্ত্রীকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন।

তারা আমাকে মারধর করে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে যায়। পরে আমার স্ত্রী, স্থানীয় জনতা এবং পাশে ডিউটিরত ধানমন্ডি থানার ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা আমাকে উদ্ধার করে আনোয়ার খান মডেল হাসপাতালে নিয়ে যায়।

মামলায় মোট পাঁচটি ফৌজদারি অপরাধের ধারার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। অপরাধগুলো হলোদণ্ডবিধি ১৪৩ অনুযায়ী বেআইনি সমাবেশের সদস্য হয়ে কোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধে অপরাধমূলকভাবে বল প্রয়োগ করা, ৩৪১ অনুযায়ী কোনো ব্যক্তকে অবৈধভাবে নিয়ন্ত্রণ করা, ৩৩২ ধারা অনুযায়ী সরকারি কর্মকর্তার কাজে বাধাদানের উদ্দেশ্যে আহত করা, ৩৫৩ ধারা অনুযায়ী সরকারি কর্মকর্তার ওপর বল প্রয়োগ করা এবং ৫০৬ ধারায় প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার


Search News




©2020 Daily matrichaya. All rights reserved.
Design BY PopularHostBD