সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০২০, ০৯:৫০ অপরাহ্ন

আপডেট
*** অনলাইন নিউজ পোর্টাল / অনলাইন টেলিভিশন সহ যে কোন ধরনের ওয়েবসাইট তৈরির  জন্য আজই যোগাযোগ করুন  - ০১৬৪৬৯৯০৮৫০।।  ভিজিট করুন - www.popularhostbd.com।।
সংবাদ শিরোনাম :

কচুয়ায় যুবলীগ নেতা ডালিমের উপর সন্ত্রাসী হামলা

কচুয়ায় যুবলীগ নেতা ডালিমের উপর সন্ত্রাসী হামলা

চাঁদপুরের কচুয়ায় উত্তর অঞ্চলের জনপথ সাচারে রাজনৈতিক কেন্দ্র করে সাচার ইউপি পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মনির হোসেন প্রভাবশালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি । সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন নাহার ভূঁইয়ার ছেলে যুবলীগ নেতা শাহরিয়ার হোসেন ভূঁইয়া ডালিম(৩৫) এর উপর গত মঙ্গলবার রাত ৯টায় অতর্কিত হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে। এসময় ডালিমের সাথে থাকা হযরত আলী(৫৫) ও ছানা (২৪) আহত হয়।এ ব্যাপারে ডালিমের মা কামরুন নাহার ভূঁইয়া বাদী হয়ে কচুয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-১৫/৯৮।উঝ
ঘটনার বিবরণে জানা যায়, উপজেলার কলাকোপা গ্রামের অধিবাসী যুবলীগ নেতা শাহরিয়ার হোসেন ভূঁইয়া মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে স্থানীয় সাচার পশ্চিম বাজারে যাওয়ার পথে পূর্ব থেকে উৎ পেতে থাকা কান্দিরপাড় গ্রামের সন্ত্রাসী মনির মেম্বার, তার ছেলে ও সাঙ্গপাঙ্গ মোঃ সোহেল(২৬), সাদ্দাম হোসেন কাউছার(৩৩), এমরান হোসেন প্রকাশ বুশ(২৮), মহি উদ্দিন(২৫), লাদেন(২২), সজিব(৩০), আনোয়ার হোসেন(৫০), গিয়াস উদ্দিন প্রকাম গেসু(৩২), কাউছার(৩৫), সোহেল(৩০) অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে শাহরিয়ার হোসেন ডালিমের ভূঁইয়া ও তার সাথে থাকা অপর দুইজন হযরত আলী ও ছানার উপর অর্তকিত হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। গুরুতর আহত শাহরিয়ার হোসেন ডালিম ভূঁইয়াকে কুমিল্লা সরকারি মেডিকেল কলেজ হসপিটালে ভর্তি করানো হয়েছে।
সাচার পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ আবু হানিফ বলেন, ডায়মন্ড হাসপাতালের সামনে যুবলীগ নেতা ডালিমের উপর হামলা চালানো হয়। এ খবর শুনে আমি আমার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য কচুয়া থেকে অতিরিক্ত পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে নিয়ে আসা হয়।
কামরুন নাহার ভূঁইয়া বলেন, ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান মনির মেম্বারের ছেলেরা সাচার বাজার সহ আশেপাশের এলাকায় সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজী, লুন্ঠন সহ বিভিন্ন অপকর্ম সহ সমাজ বিরোধী কাজের সাথে জড়িত। আমার প্রয়াত স্বামী মরহুম কামাল ভূঁইয়া সাচার ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান, সাচার হাই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ছিলেন। আমি নিজে উপজেলা পরিষদের প্রথম মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, সাচার হাই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ছিলাম। সাচারের মাটি ও মানুষের সাথে আমাদের পরিবারের গভীর সম্পর্ক। এই সাচার কচুয়ার একটি বানিজ্যিক অঞ্চল। এখানে মনির মেম্বার ও তার ছেলেরা সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করতে চায়। আমি এবং আমার ছেলেরা ভূঁইয়া পরিবারের ঐতিহ্য রক্ষা করতে গিয়ে ও সাচার বাসীর শান্তির কথা চিন্তা করে তার এই সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে বাঁধা দিলেই বিভিন্ন সময়ে তার সাথে আমাদের বিরোধের সৃষ্টি হয়। এই বিরোধিতাকে কেন্দ্র করেই সন্ত্রাসী মনির মেম্বার ও তার ছেলেরা আমার ছেলেকে মেরে ফেলার চেষ্টা করে। এই মনির মেম্বার কচুয়ার উত্তর অঞ্চলের একটি আতঙ্কিত নাম। তার ব্যাপারে কচুয়া সহ বিভিন্ন জেলায় একাধিক মামলা রয়েছে।
উক্ত ঘটনার পেক্ষিতে এলাকায় থমথম অবস্থা বিরাজ করছে। কচুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ ওয়ালী উল্লাহ (অলি) পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা সহ সাচার ফাঁড়ির সাথে সার্বক্ষনিক যোগযোগ রাখছেন বলে তিনি জানান।


Search News




© Daily matrichaya. All rights reserved.
Design BY PopularHostBD